Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/timesi/public_html/wp-content/themes/covernews/lib/breadcrumb-trail/inc/breadcrumbs.php on line 254

হিন্দু-মুসলিম বিভেদ সৃষ্টির লক্ষ্যে শিলাদিত্য ভিত্তিহীন কথা বলছেন: শেরমান আলী

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটনেট, ভারত থেকে: ভারতের বিজেপিশাসিত অসমের বিধায়ক শিলাদিত্য দেব হিন্দু-মুসলিমের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করার লক্ষ্যে ভিত্তিহীন কথা বলছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিধায়ক শেরমান আলী আহমেদ। তিনি রোববার দেয়া সাক্ষাৎকারে এ মন্তব্য করেন।
বিজেপি দলের বিধায়ক শিলাদিত্য দেব গত শুক্রবার দিসপুর প্রেস ক্লাবে ‘মুখোমুখি’ অনুষ্ঠানে বলেন, নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) থেকে চল্লিশ লাখ লোকের নাম বাদ পড়েছে ভালো কথা। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, বাকি এক কোটি চল্লিশ লাখ বিদেশির নাম কী করে ঢুকল?’
বিধায়ক শিলাদিত্য দেবের দাবি, “২০২৬ সালে রাজ্যের ১২৬টি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে ৫৬টি বিধানসভা কেন্দ্র মুসলিমদের দখলে যাবে। সেসময় অসমের মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসবেন এআইইউডিএফ প্রধান বদরউদ্দিন আজমল। এই ক’বছরে জনসংখ্যা বৃদ্ধির জন্য ওই ফল কেউ আটকাতে পারবে না।” চলতি আগস্টের প্রথম সপ্তাহেও তিনি ওই ধরণের দাবি করেছিলেন।
এ প্রসঙ্গে অসমের কংগ্রেস বিধায়ক শেরমান আলী আহমেদ রোববার বলেন, ‘শিলাদিত্য দেব কোন তথ্যের ওপর ভিত্তি করে এনআরসি তালিকায় এক কোটি চল্লিশ লাখ বিদেশি লোকের নাম আছে বলতে পারেন? একদিকে, তিনি বাঙালি হিন্দুদের বিদেশি বলে গণ্য করেন না, অন্যদিকেঃ তিনি বলছেন, এক কোটি চল্লিশ লাখ বিদেশি আছে। তিনি কোন তথ্যের উপরে ভিত্তি করে এ কথা বলছেন তা তিনিই ভালো করে বলতে পারবেন। ওনার এসব বক্তব্যের কোনো বাস্তব ভিত্তি নেই। উনি শুধুমাত্র মুসলিমদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ বা হিংসা ছড়ানোর উদ্দেশ্য নিয়ে এবং হিন্দু-মুসলিমের মধ্যে দাঙ্গা বাধানোর উদ্দেশ্যে এসব কথা বলছেন।’ শিলাদিত্য দেব আরএসএসের এজেন্ডা অনুযায়ী অসমে চরম সাম্প্রদায়িকতাবাদ ছড়ানোর চেষ্টা করছেন বলেও বিধায়ক শেরমান আলী আহমেদ মন্তব্য করেন।

সূত্র: পার্সটুডে।

print

Leave a Reply