‘কাল্পনিক-গায়েবি’ মামলা ও তদন্ত বন্ধ চেয়ে রিট

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটনেট, ঢাকা: বিরোধী দলগুলোর নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া গায়েবি মামলার তদন্ত বন্ধ ও পরবর্তীতে এ ধরনের মামলা না দেয়ার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে একটি রিট দায়ের করা হয়েছে।রবিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি দায়ের করেন অ্যাডভোকেট এ কে খান। বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন ব্যারিস্টার এ কে এম এহসানুর রহমান। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সচিব, পুলিশের আইজি, ডিএমপি কমিশনার, ডিএমপি রমনা জোনের ডেপুটি ও অতিরিক্ত ডেপুটি কমিশনার, রমনা, পল্টন ও শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ মোট নয় জনকে এই রিটে বিবাদী করা হয়েছে।
রিটে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত যত গায়েবি মামলা দেয়া হয়েছে, সেগুলোর তদন্ত বন্ধ এবং এ গায়েবি মামলাগুলোর বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অধীনে কমিটি করে ঘটনার তদন্ত করা এবং পরবর্তীতে যেন এ ধরনের মামলা না দেয়া হয়, তার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।এছাড়াও পুলিশি ক্ষমতা অপব্যবহার করে গায়েবি বা আজগুবি মামলা দায়ের করা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- এমন রুল জারির আবেদনও করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, জাতীয় নির্বাচন ও বিরোধী দলগুলোর আন্দোলনকে কেন্দ্র করে রাজধানী ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে নাশকতা, পুলিশের কাজে বাধাসহ নানা অভিযোগ একাধিক গায়েবি মামলা দায়ের করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এসব মামলায় মৃত ব্যক্তি, বিদেশি অবস্থান করছেন এমন ব্যক্তিদেরও নাম রয়েছে। বিএনপির অভিযোগ- বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের শত শত সিনিয়র নেতৃবৃন্দ ও আইনজীবী নেতৃবৃন্দের নামে সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট, কাল্পনিক ও গায়েবি মামলা দিয়ে রাতের আঁধারে বাসাবাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হচ্ছে।আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনও ৫ জানুয়ারির মতো একতরফা ও ভোটারবিহীন করার নীলনকশার অংশ হিসেবে এই গণগ্রেফতার। সরকার পুলিশ বাহিনী ব্যবহার করে নির্বাচনী পরিবেশ ধ্বংস করার পাঁয়তারা করছে। ১ সেপ্টেম্বর মহাসমাবেশের পর থেকে সারা দেশে তিন হাজারের অধিক গায়েবি মামলা দেয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করেছে বিএনপি।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *