করোনায় প্রাণ গেল আরো ৬৯ জনের

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটনেট, ঢাকা: বাংলাদেশে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় আরো ৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৯ হাজার ৮৯১ জনে। নতুন করে রোগী শনাক্ত হয়েছে ৬০২৮ জন। মোট শনাক্ত ৬ লাখ ৯৭ হাজার ৯৮৫ জনে দাঁড়িয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় ৪৮৫৩ জন এবং এখন পর্যন্ত ৫ লাখ ৮৫ হাজার ৯৬৬ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।
মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত পরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বাংলাদেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের ৪০২তম দিনে ঢাকাসহ সারা বাংলাদেশে আরো ৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে ৪৩ জন পুরুষ ও ২৬ জন নারী। হাসপাতালে ৬৩ জন ও বাসায় পাঁচজন মারা যান। একজনকে হাসপাতালে মৃত অবস্থায় আনা হয়। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল নয় হাজার ৮৯১ জন। একই সময়ে দেশের সরকারি ও বেসরকারি ২৫৫টি ল্যাবরেটরিতে ৩৩ হাজার ৬১৮টি নমুনা সংগ্রহ ও ৩২ হাজার ৯৫৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা পরীক্ষায় নতুন ছয় হাজার ২৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এ নিয়ে মোট শনাক্তকৃত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ছয় লাখ ৯৭ হাজার ৯৮৫।
বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১৮ দশমিক ২৯ শতাংশ। গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত শনাক্তের মোট হার ১৩ দশমিক ৭৬ শতাংশ। একই সময়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন চার হাজার ৮৫৩ জন। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা পাঁচ লাখ ৮৫ হাজার ৯৬৬। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৮৩ দশমিক ৯৫ শতাংশ।
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত ৬৯ জনের মধ্যে ত্রিশোর্ধ্ব তিনজন, চল্লিশোর্ধ্ব সাতজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ২০ জন এবং ষাটোর্ধ্ব ৩৯ জন রয়েছেন। ৬৯ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৪১ জন, চট্টগ্রামে ১৩ জন, রাজশাহীতে তিনজন, খুলনায় তিনজন, বরিশালে তিনজন, সিলেটে দুইজন, রংপুরে তিনজন ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজনের মৃত্যু হয়।
গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা শনাক্তের কথা জানায় সরকার। গত বছরের মে মাসের মাঝামাঝি থেকে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করে। আগস্টের তৃতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত শনাক্তের হার ২০ শতাংশের ওপরে ছিল। এ বছর মার্চে শুরু হয়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। প্রথম ঢেউয়ের চেয়ে এবার সংক্রমণ বেশি তীব্র। মধ্যে কয়েক মাস ধরে শনাক্তের চেয়ে সুস্থ বেশি হওয়ায় দেশে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা কমে আসছিল। কিন্তু মার্চ থেকে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যাও আবার বাড়তে শুরু করেছে।

print

Leave a Reply