topস্বাস্থ্য

চিন থেকে ঢাকায় আসা ৪ জনের নতুন করোনা শনাক্ত

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটনেট, ঢাকা: এবার আগ্রার ছায়া বাংলাদেশে। অর্থাৎ সম্প্রতি সেই চিন থেকে ভারতে ফিরেছেন আগ্রার বাসিন্দা এক যুবক। পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন তিনি। এখন নিভৃতবাসে রয়েছেন। যুবকের বাড়ি সিল করেছে প্রশাসন। এমনি কাণ্ড বাংলাদেশে। চিন থেকে ঢাকায় আসা চার ব্যক্তির করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের নমুনা পরীক্ষার জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়েছে। তারা সবাই চিনা নাগরিক। সোমবার বিকালে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দায়িত্বরত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ডা. সাজ্জাদ হোসেন মিডিয়াকে জানান, সোমবার বিকাল ৩টা ২০ মিনিটে চিন থেকে আরটিপিসিআর পরীক্ষা করে আসা দেশটির চারজন নাগরিক বিমানবন্দরে আসেন। তাদের মধ্য একজনের কান লাল হওয়াসহ কিছু উপসর্গ দেখা গেলে তাৎক্ষণিক র্যা পিড অ্যান্টিজেন টেষ্ট করা হয়।
শীত পড়তেই চিনে হু হু করে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। করোনার নতুন ধরন বিএফ.৭ ভয়াবহভাবে বিস্তার ঘটেছে দেশটিতে। ইতিমধ্যেই করোনা আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে অনেক রোগী মারা গেছে।ডিসেম্বরের প্রথম ২০ দিনে চিনে প্রায় ২৫ কোটি মানুষ মানুষের করোনা আক্রান্ত হবেন বলে দেশটির শীর্ষ আধিকারিকরা নাকি এমনটাই ধারণা করেছিলেন। চিনের স্বাস্থ্য কর্মকর্তরা আগেভাগে অনুমান করেছিলেন ডিসেম্বরের প্রথমে ‘করোনা বিস্ফোরণ’ হতে পারে। আর সেই সংখ্যা নাকি ২৫ কোটি ছাড়াবে। আর সেই কারণেই নাকি সাধারণের প্রতি কড়া হয়েছিল প্রশাসন।চিনে কত মানুষ আক্রান্ত, তার সঠিক পরিসংখ্যাণ এখনও প্রকাশ্যে আসেনি।তবে যদি এই পরিসংখ্যাণ সত্যি হয়, তা হলে সে দেশের প্রায় ১৮ শতাংশ মানুষ এই মুহূর্তে করোনায় আক্রান্ত।সংবাদ সংস্থা ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, চিনে নাকি প্রতিদিন কোভিডে আক্রান্ত হচ্ছেন ৩ কোটির বেশি মানুষ। এই তথ্য সত্যি হলে একদিনে কোভিড সংক্রমণের নিরিখে অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে চিন। ঢাকায় অ্যান্টিজেন টেস্টে চারজনই পজিটিভ হন। ফলে তাদের দ্রুত ঢাকার মহাখালীর ডিএনসিসি কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সেখানে র্যা পিড অ্যান্টিজেন টেস্ট ছাড়াও আরটিপিসিআর পরীক্ষা করে তবেই বলা যাবে তারা করোনা পজেটিভ না নেগেটিভ। কারণ অনেক সময় র্যা পিড অ্যান্টিজেন টেস্টে শতভাগ করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয় না। এছাড়া তাদের চূড়ান্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য রোগতত্ত্ব রোগ নিয়ন্ত্রণ গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. তাহমিনা শিরিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আমাদের নিশ্চিত করেছেন।পরে আইডিসিআরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. তাহমিনা শিরিন জানান,ডিএনসিসি হাসপতালে এসেছে শুনেছি। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। তবে র্যা পিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা পজিটিভ হলে করোনাভাইরাস আক্রান্ত বলে ধরে নেওয়া যায়। ডিএনসিসি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে আমরা টিম পাঠিয়ে তাদের নমুনা সংগ্রহ করব। কারণ এক্ষেত্রে নমুনা সংগ্রহের পদ্ধতি আলাদা। বিশেষভাবে সংগ্রহ করতে হয়। নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পেতে চার-পাঁচ দিন লেগে যেতে পারে। ফলাফলটা সংগৃহীত নমুনার ওপর নির্ভর করে। তবে দ্রুত ফলাফল পাওয়ার চেষ্টা করা হবে।

Related Articles

Back to top button