জাতীয়সারাদেশ

আন্দামান সাগরে ২০ রোহিঙ্গার মৃত্যু,নৌকায় ভাসছে আরও ১০০

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটনেট, ঢাকা: ভারতের আন্দামান সাগরে নৌকায় ভাসছে শতাধিক রোহিঙ্গা।ইতিমধ্যে অনেকের মৃত্যুর শঙ্কা করা হয়েছে। সূত্র জানিয়েছে, নৌকার ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়ার কারণে আন্দামান সাগরে ১০০ রোহিঙ্গা আটকা পড়ে। ক্ষুধা-তৃষ্ণা ও জলে ডুবে ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরআগে আন্দামান সাগরে ডুবে যাওয়া একটি নৌকা থেকে ১৫৪ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করে ভিয়েতনামি একটি নৌযান। পরে তাদেরকে মায়ানমারের নৌবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হয়। কয়েকদিন আগে শ্রীলংকার নৌবাহিনী অন্য আরেকটি নৌকা থেকে শতাধিক রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছিল।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের মায়ানমারে নিরাপদ প্রত্যাবাসন নিশ্চিতে তাদের রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা দেওয়াসহ পাঁচটি পদক্ষেপ নিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।মায়ানমারের রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করা দুটি গোষ্ঠী বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে পাঁচটি ভারতীয় জাহাজ আন্দামান সাগরে ভাসমান ওই রোহিঙ্গাবোঝাই নৌকার কাছে পৌঁছেছে। ভারতীয় নৌবাহিনীর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, এ বিষয়ে জানানোর মতো কিছু তার কাছে নেই। ভারতীয় কোস্ট গার্ডের এক মুখপাত্রের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাৎক্ষণিকভাবে তার কাছ থেকেও সাড়া পাওয়া যায়নি।তবে মায়ানমারের রোহিঙ্গাদের সহায়তায় কাজ করা আরাকান প্রজেক্টের পরিচালক ক্রিস লেয়া বলেছেন, আমাদের অনুমান হচ্ছে ২০ জনের মতো মারা গেছে, কেউ মারা গেছে ক্ষুধা, তুষ্ণায়, মরিয়া হয়ে নৌকা থেকে লাফিয়ে পড়ার পর অন্যদের মৃত্যু হয়েছে। এটা সত্যিই ভয়াবহ ও বেদনাদায়ক।নৌকায় থাকা রোহিঙ্গাদের ওই দলটি দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে সমুদ্রে ভাসছে বলে জানিয়েছে এশিয়া প্যাসিফিক রিফিউজি নেটওয়ার্কের রোহিঙ্গা ওয়ার্কিং গ্রুপ। ভিটিসি নিউজের বরাতে খবরে বলা হয়, বুধবার মায়ানমার উপকূল থেকে ২৮৫ মাইল দক্ষিণে ভিয়েতনামি নৌযান হাই ডুয়ং ২৯ রোহিঙ্গাবোঝাই ওই নৌকাটি দেখতে পায়। ইঞ্জিন বিকল হয়ে তখন নৌকাটির ভেতরে ফুটো দিয়ে জল ঢুকছিল। পরে ডুবন্ত ওই নৌকা থেকে ১৫৪ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়। এদের মধ্যে ৪০ জন নারী ও ৩১টি শিশু ছিল। পরদিন উদ্ধার রোহিঙ্গাদের মায়ানমারের নৌবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হয়। পরে ওই রোহিঙ্গাদের ভাগ্যে কী ঘটেছে তা জানা যায়নি। এ বিষয়ে কথা বলতে তাৎক্ষণিকভাবে মায়ানমার জান্তার মুখপাত্রের সঙ্গেও যোগাযোগ করতে পারেনি বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

Related Articles

Back to top button