Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/timesi/public_html/wp-content/themes/covernews/lib/breadcrumb-trail/inc/breadcrumbs.php on line 254

সিভিল এভিয়েশনের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের বিরুদ্ধে চরম অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ

জাকির হোসেন, টাইমস আই বেঙ্গলী ডটনেট, ঢাকা: সিভিল এভিয়েশনের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের বিরুদ্ধে চরম অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়াও স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের প্রধান কর্মকর্তা ডা. মোশারফ হোসেনের বিরুদ্ধে সরকারি ওষুধ বাইরে বিক্রি ও ফিটনেস ছাড়পত্র দিয়ে কয়েক লাখ টাকার হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে।সিভিল এভিয়েশনের বিভিন্ন কর্মচারীরা জানিয়েছেন, আমাদের নিজেস্ব চিকিৎসা বিভাগ হওয়া সত্ত্বেও সঠিক চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। অনেক সময় চিকিৎসা সেবা কেন্দ্রে থাকা কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অসৎ আচরণ করে থাকেন।গত ৬ সেপ্টেম্বর সিভিল এভিয়েশনের কর্মচারী মো. তোফাজ্জল হোসেন তার স্ত্রী শাহীনুর বেগমকে নিয়ে কাওলা সিভিল এভিয়েশনের স্কুলের সামনে চিকিৎসা সেবা কেন্দ্রে গেলে দায়িত্বরত দুই কর্মচারী তাদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন। ঐ দুই কর্মচারী আরো জানান, চিকিৎসা সেবা কেন্দ্রে দুইজন
চিকিৎসক দায়িত্ব প্রাপ্ত হলেও একজন ৪ মাস অপরজন ৬ মাসের ছুটিতে রয়েছেন। তারা কবে আসবেন জানতে চাইলে তার কোনো সঠিক জবাব দেয়া হয়নি বলে জানান তোফাজ্জল। এছাড়াও সিভিল এভিয়েশনের নিজেস্ব কর্মকর্তা কর্মচারীদের চিকিৎসা না করে বহিরাগত রোগীদের লাইন দিয়ে চিকিৎসা সেবা ও ওষুধ বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সিভিল এভিয়েশনের বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছেন, কয়েক মাস আগে আদালতের নির্দেশে যে দেড় হাজার কর্মচারীকে মাস্টাররোল থেকে স্থায়ী নিয়োগ দেয়া হয়েছে, তাদের প্রত্যেকজনের কাছ থেকে সিভিল এভিয়েশনের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান ডা. মোশারফ হোসেন ২ হাজার টাকা করে নিয়ে ফিটনেস ছাড়পত্র দিয়েছেন। এছাড়াও দৈনিক ভিত্তিক কর্মচারীদের কাছ থেকে ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। সিভিল এভিয়েশনের স্বাস্থ্য বিভাগের সরকারিভাবে বরাদ্দকৃত ওষুধ রোগীদের না দিয়ে বাইরে বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সিভিল এভিয়েশনের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান কর্মকর্তা ডা. মোশারফ হোসেনের সদর দফতরের অফিসে ফোনে যোগাযোগ করা হলে জহিরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি নিজেকে সহকারি পরিচয় দিয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, দ্রুত বলেন আমার রোগী অসুস্থ হয়ে পড়েছে। এরপর লাইন কেটে দেন। পরে আবারো ঐ নম্বরে ফোন করা হলে একজন মহিলা ফোন রিসিভ করে বলেন, ডা. মোশারফ হোসেন টার্মিনাল ভবনের স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রে আছেন। ঐ টার্মিনাল ভবনে স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রে ফোনে যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

print

Leave a Reply