ফায়ার সার্ভিসকে সরকার নতুন আঙ্গিকে ঢেলে সাজিয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটনেট, নারায়ণগঞ্জ থেকে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বাহিনীকে বর্তমান সরকার নতুন আঙ্গিকে ঢেলে সাজিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনায় ফায়ার সার্ভিসের আধুনিকায়ন ও ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে বলেও জানান তিনি। তিনি বলেন, এই বাহিনীকে আগামী দিনে একটি সুদক্ষ, অভিজ্ঞ, প্রশিক্ষিত, আধুনিক ও যুগোপযোগী বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলা হবে। এনিয়ে বর্তমান সরকার নিষ্ঠার সাথে কাজ করে যাচ্ছে। দেশে জঙ্গীবাদ উৎপাটনের ক্ষেত্রে ফায়ার সার্ভিস অবদান রেখেছেন উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেশে জঙ্গীবাদ উৎপাটনের ক্ষেত্রে ফায়ার সার্ভিস কাজ করছে। জঙ্গী দমনের ক্ষেত্রে দি লাইফ সেভিং ফোর্স বাহিনীর সদস্যদের অবদান রয়েছে। তারা অগ্নি নির্বাপন, দুর্যোগ মোকাবেলা, রোড এক্রিডেন্ট, জঙ্গী দমনসহ যে কোন দুর্যোগ মোকাবেলায় কাজ করছে। বঙ্গবন্ধু ফায়ার একাডেমী প্রতিষ্ঠার কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য সরকার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করছে।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর অদূরে নারায়নগঞ্জের রূপগঞ্জ পূর্বাচল শহরে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কমপ্লেক্র প্রাঙ্গণে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ’’ দি লাইফ সেভিং ফোর্স’’ সপ্তাহ-২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
ফায়ার সার্ভিসকে যুগোপযোগী করে তুলতে ৬২ হাজার অগ্নিসেনাকে দক্ষ ভলান্টিয়ারের প্রশিক্ষণ দিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আগামী জুনে দেশে ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনের সংখ্যা ৫৬৭ টিতে দাঁড়াবে। ২০২২ সালে ৭শ’ স্টেশন হবে। মুন্সীগঞ্জে অত্যাধুনিক ফায়ার ফ্যাকাল্টির কাজ চলছে। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এখন ২৩ তলা পর্যন্ত উঁচুতে কাজ করতে সক্ষম। নদী মাতৃক দেশ হিসেবে নদী ফায়ার স্টেশনেরও কাজ চলছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দেশের সকল উপজেলায় স্টেশন হচ্ছে। অগ্নিসেনাদের বেতন ১৮ থেকে ১৭ তম গ্রেডে উন্নীত করা হয়েছে।
তিনি বলেন, ভবিষ্যতে হেলিকপ্টারে আগুন নেভানো হবে। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বাহিনীর জন্য আগামীতে হেলিকপ্টার ক্রয়ের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। এবিষয়ে সরকার চিন্তা ভাবনা করছে।
পরে মন্ত্রী একযোগে সারা দেশে ফায়ার সার্ভিস সপ্তাহের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এসময় প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিদের শুভেচ্ছা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী (বীর প্রতীক), স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের (সুরক্ষা ও সেবা) সচিব মো. শহীদুজ্জামান, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসেন, পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক মেজর জেনারেল শাকিল আহমেদ।
বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, আমাদের দেশের ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স যে কতটুকু উন্নত হয়েছে সেটা আজকের মহড়া দেখে বুঝা যাচ্ছে।
তিনি বলেন, পূর্বাচল উপ-শহর দেশের মধ্যে একটি আধুনিক ও উন্নত শহরে পরিণত হবে। বেস্ট লোকেশন রুপগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস। এটিকে দৃষ্টিন্দন করতে হবে। শিগগিরই মাঠ ভরাট করে সেখানে প্যারেড গ্রাউন্ট তৈরী করা হবে। এনিয়ে সরকার কাজ করছে।
এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সকাল সোয়া দশটায় রূপগঞ্জ উপজেলায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পূর্বাচল স্টেশনে এসে পৌঁছান। পরে বেলুন উড়িয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ ২০১৯ এর উদ্বোধন করেন। এ সময় প্যারেড ও গার্ড অফ অনারের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে অভিবাদন জানানো হয়। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা অগ্নি-দূর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণের বিভিন্ন কলা-কৌশল প্রদর্শন করেন।
গত তিন বছরে মানুষের জীবন ও সম্পদ রক্ষায় সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ১৪৪ জনকে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সেবা পদক ও বনানীতে এফ আর টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড নিয়ন্ত্রণে দায়িত্ব পালনকালে নিহত ফায়ারম্যান সোহেল রানাকে মরণোত্তর পদক প্রদান করেন।
ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ-২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিনে আজ থেকে ৭ দিন ব্যাপী অনুষ্ঠান মালা শুরু হয়। এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ’’ দি লাইফ সেভিং ফোর্স’’ সপ্তাহ-২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের কুচকাওয়াজে ও অগ্নি মহড়ায় অংশ গ্রহণ করেন। কুচকাওয়াজে নেতৃত্ব দেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর উপ-সহকারী পরিচালক সালেহ উদ্দিন।
সূত্র: বাসস।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *