শ্রী শ্রী কৃষ্ণের আবির্ভাব তিথি

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটনেট, ঢাকা: আজ ২ সেপ্টেম্বর। শুভ জন্মাষ্টমী। ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ আনন্দ-উচ্ছ্বাসের মধ্য দিয়ে সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা এই দিবসটি পালন করে থাকে। সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের প্রচলিত বিশ্বাস অনুযায়ী, দ্বাপর যুগের শ্রাবণ মতান্তরে ভাদ্র মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে শ্রী শ্রী কৃষ্ণ জন্মগ্রহণ করেন। ধরাধামে শ্রী কৃষ্ণের আবির্ভাবের এই পূর্ণতিথি ‘জন্মাষ্টমী’ নামে পরিচিত। প্রতি বছরের মতো এবছরও জন্মাষ্টমী উপলক্ষে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে নানা আয়োজন করা হয়েছে। ঢাকার পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন স্থানে গীতাযজ্ঞ, কৃষ্ণপূজা, শোভাযাত্রা, আলোচনাসভা, কীর্তন, আরতি, প্রসাদ বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হবে। দিবসটি পালন উপলক্ষে রাজধানীর মিরপুরের আন্তর্জাতিক কৃষ্ণাভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) ছয় দিনব্যাপী কর্মসূচি নিয়েছে। এ দিকে জন্মাষ্টমী উপলক্ষে শোভাযাত্রা চলাকালে যানজট এড়াতে বিভিন্ন রুট পরিহারে নির্দেশনা জারি করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। এ ছাড়া রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।
বাণীতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেন, ‘সমাজ থেকে অন্যায়-অত্যাচার, নিপীড়ন ও হানাহানি দূর করে মানুষে মানুষে অকৃত্রিম ভালোবাসা ও সম্প্রীতির বন্ধন গড়ে তোলাই ছিল শ্রীকৃষ্ণের মূল দর্শন। যেখানে অন্যায় অবিচার ও ধরাধামকে গ্রাস করেছে সেখানেই শ্রীকৃষ্ণ আবির্ভূত হয়েছেন আপন মহিমায়। তিনি ছিলেন পরোপকারী, প্রেমিক ও সমাজসংস্কারক।
সনাতন ধর্ম মতে, অধর্ম ও দুর্জনের বিনাশ এবং ধর্ম ও সুজনের রক্ষায় তিনি যুগে যুগে পৃথিবীতে আগমন করেন। অপশক্তির হাত থেকে শুভশক্তিকে রক্ষার জন্য কৃষ্ণ বৎসাসুর, অঘাসুর, বকাসুর প্রভৃতি অপশক্তিকে বিনাশ করেন। মথুরার অত্যাচারী রাজা কংসকে হত্যা করে মথুরায় শান্তি স্থাপন করেন।’
বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এদেশে সকল ধর্ম ও বর্ণের মানুষ যুগ যুগ ধরে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে আসছে। আমাদের সংবিধানে সকল ধর্ম ও বর্ণের মানুষের সমানাধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি, ধর্ম যার যার, উৎসব সবার। শ্রীকৃষ্ণ আজীবন শান্তি, মানবপ্রেম ও ন্যায়ের পতাকা সমুন্নত রেখেছেন।মানুষে মানুষে ভ্রাতৃত্ব স্থাপন এবং সমাজে সাম্য প্রতিষ্ঠাই ছিল তার একমাত্র লক্ষ্য। শ্রীকৃষ্ণের আদর্শ ও শিক্ষা বাঙালির হাজার বছরের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি, সৌহার্দ্য ও ভ্রাতৃত্বের বন্ধনকে আরও সুদৃঢ় করবে বলে আমার বিশ্বাস। বর্তমান সরকার দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করতে বদ্ধপরিকর।’

print

Leave a Reply