ট্রফি উল্লাসে মেতেছে দেশ, রাজসিক সংবর্ধনা সাবিনাদের

টাইমস আই বেঙ্গলী ডটনেট: রাস্তার দুই ধারে যতদূর চোখ যায় শুধু মানুষ আর মানুষ। তীব্র গরম উপেক্ষা করেই সাফজয়ী অদম্য সাবিনা-সানজিদাদের একনজর দেখতে আর শুভেচ্ছা জানাতে বুধবার সকাল থেকেই বিমানবন্দর এলাকায় ভিড় করতে থাকে ক্রীড়াপ্রেমী সমর্থকরা। সময় যত গড়িয়েছে, মানুষের ভিড় তত বেড়েছে। বিমানবন্দরে একদফা সংবর্ধনা শেষে ছাদখোলা বাসে চড়ে মতিঝিলের বাফুফে ভবনে যাওয়ার পথে মানুষের ভিড়ে গাড়ি যেন এগোচ্ছিলই না। উৎসুক জনতাদের নিরাশও করেননি ইতিহাসগড়া মেয়েরা। ভ্রমণের ক্লান্তি উপেক্ষা করেই সারাটা সময় হাত নাড়িয়ে ট্রফি উঁচিয়ে অভিবাদনের জবাব দিয়ে গেছেন তারা।
ছাদখোলা বাসে করে শিরোপা উদ্‌যাপন বিশ্বজুড়ে পরিচিত দৃশ্য হলেও বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনে এবারই প্রথম। এমন আনন্দমুখর দিনে শিশু থেকে বুড়ো সবার শুভেচ্ছায় সিক্ত হচ্ছেন সাবিনা-সানজিদারা। পুরো বাংলাদেশে যেন উৎসবের আমেজ। ঢাকায় তার ছাপটা স্বাভাবিকভাবেই অনেক বেশি। ছাদখোলা বাস ঘিরে ছিল মানুষের ঢল, সাবিনাদের শুভেচ্ছা জানাতে রাস্তার মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়েছিলেন একাধিক তারকাও।
নেপাল থেকে ফেরার পর বিমানবন্দরে ফুল দিয়ে ও মিষ্টিমুখ করিয়ে নারী ফুটবলাদের বরণ করে নেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এবং বাফুফের কার্যনির্বাহী কমিটির একটি অংশ। ঐতিহাসিক সাফ জয়ের ট্রফি দেশের মানুষকে উৎসর্গ করেছে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। অধিনায়ক সাবিনা খাতুন বলেন, এই শিরোপা দেশবাসীর।
তিনি বলেন, সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আপনাদের ভালোবাসায় আমরা সিক্ত। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন। এই ট্রফি বাংলাদেশের ষোল কোটি বলুন আর বিশ কোটি সব মানুষের।
চ্যাম্পিয়ন অধিনায়ক আরও বলেন, প্রথমেই আমি কৃতজ্ঞতা জানাই, আমাদের মেয়েদের জন্য আজকের এই রাজকীয় আয়োজন করায়। মাননীয় ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী, বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনকে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। আমাদের এই পথচলা আসলে অনেক দিনের। ২০১২ সালে এই পরিবর্তন শুরু করেছিলেন আমাদের চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ, পরে তা রূপ দেন কাজী সালাহউদ্দিন। সেটার পরিপ্রেক্ষিতেই আজ আমাদের এই অর্জন।
বিমানবন্দর থেকে কাকলী, জাহাঙ্গীর গেট, পিএম অফিস, তেজগাঁও, মৌচাক ও কাকরাইল হয়ে বাফুফের পথে রয়েছে নারী ফুটবল দল। তাদের ঘিরে রাস্তায় তিল ধারনের জায়গাটুকুও নেই যেন! দেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন থেকে শুরু করে শিক্ষাবিদ মোহাম্মদ জাফর ইকবালসহ অনেকে এসেছিলেন সাবিনাদের অভিবাদন জানাতে। এ ছাড়া বিমানবন্দরে এসে নারী ফুটবলারদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দেশসেরা পেসার তাসকিন আহমেদ।
এদিকে গাড়িবহর বাফুফেতে পৌঁছালে সেখানে আরেকদফা বরণ করে নেয়া হবে তাদের। এছাড়া বাফুফে সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিন আরেকদফা কথা বলবেন চ্যাম্পিয়নদের সঙ্গে।
তবে এমন আনন্দের দিনে কিছুটা দুঃসংবাদও এসেছে। সাফ শিরোপার ট্রফি নিয়ে বিমানবন্দর থেকে ছাদখোলা বাসে করে বাফুফে ভবনের দিকে যাওয়ার পথে বিলবোর্ডের খোঁচায় মাথায় আঘাত পেয়েছেন ফুটবলার ঋতুপর্ণা চাকমা। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে সিএমএইচে নেয়া হয়েছে। মাথায় তিনটি সেলাই দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

Related Articles

Back to top button